বাংলাদেশের সর্বোচ্চ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড ধারী কে?

গিনেস বুকে বাংলাদেশের যত রেকর্ড:

আজকে এমন একজনের কথা জানাবো যে কিনা বাংলাদেশের গর্ব। কারণ সে মেতেছে রেকর্ড ভাঙ্গার নেশায়, হ্যাঁ তার নাম কনক  কর্মকার। তার ঝুলিতে আছে গুনে গুনে ১৫টি গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড। তাও আবার রেকর্ডগুলো সে ভেঙেছে এক বছরের মাথায়।

বাংলাদেশের সর্বোচ্চ গিনিস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড ধারী কে? The highest Guinness World Record holder in Bangladesh

 

প্রথমেই আমরা কনক কর্মকারের পরিচয় সম্পর্কে জেনে নিন-

কনক একজন বাংলাদেশী, তার জন্ম নোয়াখালীর মুদাফফরগঞ্জ উপজেলায় দৌলতপুর গ্রামে। পেশায় সে একজন ছাত্র। তিনি বর্তমানে ফেনী পলিটেকনিক্যাল ইন্সটিটিউট অধ্যায়নরত আছেন।

বাংলাদেশের সর্বোচ্চ গিনিস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড ধারী কে? The highest Guinness World Record holder in Bangladesh?

এখন আমরা জেনে নেবো আমাদের দেশের গর্ব কর্মকারের ১৫ টি গিনেস বুকে নাম লেখানোর নিয়ম-

১. ১১৫০ টি কাগজের কাপ কপালের উপর ৬৬ সেকেন্ড রেখে ব্যালেন্স করে সে নিজের করে নেয় তার প্রথম গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড। ২০১৯ সালের ৪ এ ফেব্রুয়ারি গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড তার রেকর্ডটি স্বীকৃতি দেয়।
 
২. ৪ ই এপ্রিল ২০১৯ এ তিনি দ্বিতীয়বারের মতো গিনেস বিশ্বরেকর্ড বুকে স্বীকৃতি পায়, সে ২৫ মিনিট কপালে অপর একটি বড় গিটার ব্যালেন্স করে রাখে।
 
৩. ঘাড় দিয়ে ১ মিনিটে ৩৬ বার বাস্কেটবল ক্যাচ ধরায় তৃতীয়বারের মতো ৫ ই জুন ২০১৯ এ গিনিস বুক আবারও তার নাম লেখে।
 
৪. চতুর্থবার বার গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লিখান থুতনি উপর ১৫ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড গিটার ব্যালেন্স করে।
 
৫. ২০১৯ সালের ১১ ই আগস্ট গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড তার নাম আবারও লেখে কারণ সে তার হাতের তালুর অপর পাশে ১৫ টি ডিম ব্যালেন্স করে রাখে।
 
৬. সে সাত মিনিট একটি লেনমোর তার থুতনির উপর রেখে ব্যালেন্স করে।
 
৭. ১৫ ই আগস্ট ২০১৯ এ সে আরও একটি রেকর্ড গড়ে, সে হাঁটুর উপর ৪ মিনিট ৬ সেকেন্ড ফুটবল ব্যালেন্স করে। তাই সপ্তমবারের মতো ওয়ার্ল্ড রেকর্ড করতে সক্ষম হয়।
 
৮. সে হাতের তালুর অপর পাশে ৪০ টি পেন্সিল তিরিশ সেকেন্ড ধরে ব্যালেন্স করে রাখে, এবং অষ্টমবারের মতো ওয়াল্ড রেকর্ড অফ গ্রিনিজ বুক এ নাম করে নেয়।
 
৯. থুতনির উপর চেয়ার ৩৫ মিনিট ১০ সেকেন্ড ব্যালেন্স করে রাখায় হাজার ১৯ ই অক্টোবর ২০১৯ এ আবার ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়ে।
 
১০. দশম রেকর্ডটি সে করে ফুটবল দিয়েই, ১ মিনিটে ১৬২ বার হাঁটু দিয়ে ফুটবল টাচ করে।
 
১১. ৩0 সেকেন্ডে ১৫ টি টয়লেট পেপার রোল মাথায় রেখে ব্যালেন্স করে এবং ১৩ তম গিনিস বুক ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম লিখিয়ে নেয় ২০১৯ সালের ২ ই ডিসেম্বর।
১২. মোস্ট কয়েন স্টেক্ট ইন্টু এর টাওয়ার ইন থার্টি সেকেন্ড। এটি ছিল তার ১২ তম গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড এর টাইটেল। ৩০ সেকেন্ডের সে ৫০ টি এক টাকার কয়েনের টাওয়ার তৈরি করে।
 
১৩. ৩৫ মিনিট চেয়ার থুতনির উপর রেখে ব্যালেন্স করেই কনক কর্মকার ১৩ তম গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড নাম লিখিয়েছিলেন।
 
১৪. দুটি বলের সাহায্যে ফুটবল দিয়ে আর্ম রোল করে, ১ মিনিটে ৭৬ টি আর্ম রোল করে।
 
১৫. ফুটবল দিয়ে ১ মিনিটে সবচেয়ে বেশি হেট টু নোস ট্রানজিশন তাকে এনে দিয়েছে ১৫ তম ওয়ার্ল্ড রেকর্ড।
 
আশা করছি সে আমাদের দেশের জন্য আরো অনেক অনেক রেকর্ড ভেঙে গিনিস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড বাংলাদেশের নাম উজ্জল করুক। সামনে আমরা সবাই আরো ওয়ার্ল্ড রেকর্ড তার মাধ্যমে নিজের দেশের করে নিতে পারব।
 

আরো পড়ুনঃ

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back To Top
x